অক্ষয় কুমারের আন্ডারওয়্যার পরেন রনবীর সিং-জানুন গোপন কথা

‘কফি উইথ করণ’ সিজন ৬-এর সম্প্রচারিত হওয়া দ্বিতীয় পর্ব দেখে হাসতে হাসতে পেটে খিল ধরে যাবে! এই পর্বে করণের অতিথি ছিলেন রণবীর সিং ও অক্ষয় কুমার। নানা মজাদার আড্ডার মধ্যে যে কথাটা উঠে আসে তা শুনে একবার হেঁচকি উঠবেই– রণবীর ও অক্ষয়ের অন্তর্বাস যোগ।

অক্ষয় কুমার বরাবর মজার মানুষ, তিনি পরপর মজা করতে থাকেন রনবীরের সাথে। সেখানে উঠে আসে ওদের অন্তর্বাস যোগ। সেখানেই অক্ষয় রনবীর এমন বলেন যাতে হাসির রোল উঠে যায়। জানুন-

Loading...

কিন্তু হঠাৎ এহেন প্রসঙ্গ কেন ? তাহলে খোলসা করেই বলা যাক! রণবীর ও অক্ষয় আলোচনা করছিলেন তাঁদের কেরিয়ারে কী কী মিল রয়েছে? অক্ষয় বলেন, ” ‘বেফিকরে’-র একটি দৃশ্যে রণবীর সিং অন্তর্বাস পড়ে হেঁটেছিলেন। তখন আমার কেরিয়ারের গোড়ার দিক! ১৯৯৪ সাল। ‘সুহাগ’-এ আমাকেও অন্তর্বাস পরে হাঁটতে হয়েছিল। ফারাক একটাই–রণবীর লাল অন্তর্বাস পরেছিলেন, আর আমি নীল।”

আরও পড়ুন… 

গোটা রাজ্য জুড়ে প্রতিটি গ্রামে গ্রামে খুচরো মদের দোকান খুলছে রাজ্য সরকার

রাজ্য সরকারের সিদ্ধান্ত মোতাবেক ওয়েস্টবেঙ্গল স্টেট বেভারেজ কর্পোরেশন এই বার গ্রামে গ্রামে যেইসব পঞ্চায়েত এলাকাতে কোনো মোদের দোকান নেই সেইখানে ধাপে ধাপে ২ হাজারটি মদের দোকান খুলবে ,প্রসঙ্গত সরকার পাইকারি মদের ব্যবসাতে আগেই নেমে পড়েছে এই ব্যাপারে অর্থদফতর অথবা নবান্নের শীর্ষ মহলের কোনো আপত্তি নেই । এখন মোদের থেকে রাজস্ব হিসাবে আসে ১০,০০০ কোটি টাকা এবং নিজের দোকান খুললে তা ২০,০০০ কোটি হবে বলে আশা অর্থ দফতরের ।

রাজ্যের গ্রামে গ্রামে মদের খুচরো ব্যবসা করবে এবার রাজ্য সরকার। পঞ্চায়েত এরিয়ায় এই মদ ব্যবসার উদ্যোগে সায় মিলেছে আবগারি দপ্তরের। ভারতের আয়ের অন্যতম ভাগই আসে এই আবগারি থেকে তাই ব্যবসায় যে লাভবান হবে সরকার তার কোনো সন্দেহ নেই।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *