এবার থেকে দিনেরবেলায় নাইটি পরে বেরলে ২ হাজার টাকা জরিমানা! ধরিয়ে দিলে হাজার টাকা পুরস্কার!

গ্রামের মহিলার এ বিষয়ে কুলুপ আঁটলেও জানা যাচ্ছে, এমন ফতোয়া জারি করেছেন ওই গ্রামের প্রবীণ ব্যক্তিরা। কেন? বয়স্কদের সামনে ঘরের মহিলারা নাইটি পরে বেরলে, তাঁদের অসম্মান করা হয়।

এ যেন ‘অভিশপ্ত নাইটি’! দিনের বেলায় পরলেই মহিলাদের ‘জরিমানা’ দিতে হতে পারে ২০০০টাকা। আর যিনি ‘অভিযুক্তকে’ ধরিয়ে দেবেন, তাঁকে পুরস্কার বাবদ দেওয়া হবে এক হাজার টাকা। এমন অদ্ভুত নিয়ম জারি করা হয়েছে অন্ধ্র প্রদেশের পশ্চিম গোদাবরী জেলার তোকালাপল্লী গ্রামে।

Loading...

এমন ‘ফরমান’ কারা জারি করলেন?

গ্রামের মহিলার এ বিষয়ে কুলুপ আঁটলেও জানা যাচ্ছে, এমন ফতোয়া জারি করেছেন ওই গ্রামের প্রবীণ ব্যক্তিরা। কেন? বয়স্কদের সামনে ঘরের মহিলারা নাইটি পরে বেরলে, তাঁদের অসম্মান করা হয়। শাড়ি বদলে নাইটি পরে বেরনো এক প্রকার গ্রামের সংস্কার বিরোধী।

তাই ফতোয়া জারি হয়েছে, সকাল ৭টা থেকে সন্ধে ৭টা পর্যন্ত নাইটি পরে কোনও মহিলাই বাইরে বেরতে পারবেন না। এই নিয়ম ভাঙলে ২ হাজার টাকা জরিমানা দিতে হবে তাঁদের। এমনকি, হাতেনাতে নাইটি পরা মহিলাকে ধরিয়ে দেবেন যিনি, তাঁকে এক হাজার টাকা পুরস্কার দেওয়া হবে।

কিন্তু জরিমানার অর্থ নিয়ে শেষমেশ কী করা হবে?

গ্রামবাসী সূত্রে খবর, ওই অর্থ গ্রামের উন্নয়নের কাজে লাগানো হবে। তবে, এমন উদ্ভট ফরমান জারি হতেই গ্রাম পরিদর্শনে আসেন পুলিস সাব-ইনস্পেকটর বিজয় কুমার। ৩৬ হাজার মানুষের বাস ওই গ্রামে। কিন্তু এ বিষয়ে প্রশ্ন করলে মুখ খুলছেন না কেউ। এমনকি মহিলারা বলছেন, ‘মিথ্যে খবর, এমন কিছু এখানে হচ্ছে না। গুজব ছড়িয়েছে কেউ।’

তবে, সরস্বতী নামে এক মহিলা বলছেন, “দিনের বেলায় নাইটি পরার নিয়ম নেই ঠিকই। কিন্তু পরলে যে জরিমানা দিতে হবে এ কথা মিথ্যে।” আবার অন্য এক গ্রামবাসী কৃষ্ণা কুমারের কথায়, “এমন নিয়মে আমরা খুব খুশি। এই ঐতিহ্যকে টিকিয়ে রাখা উচিত নারীদেরই।”

Source: Zee 24 Ghanta

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *