প্রায় ৪০ দিন পর সূর্য উঠলো যেখানে, জানলে অবাক হয়ে যাবেন

নতুন বছরে এই প্রথম সূর্য দেখা গেলো এখানে, বলতে গেলে ৪০ দিন পর সূর্যোদয়। এতদিন অন্ধকারে আচ্ছন্ন ছিলো দেশটির পশ্চিম অংশ। দেশটি রাশিয়া। সূর্য তো ওঠেইনি বরঙ রাতের আঁধারে নতুন বছরকে স্বাগত জানিয়েছিলো এই এলাকার বাসিন্দারা। প্রায় ৪০ দিন পর প্রথম এই শুক্রবার সূর্যদয় দেখে এলাকার বাসিন্দারা।

দীর্ঘদিন পর সূর্যের মুখ দেখে রীতিমত উৎসবে মেতে উঠেছেন এলাকার বাসিন্দারা। লোকজন বেশ হৈ-হুল্লোড়েও মাতেন বছরের প্রথম সূর্যোদয় দেখার পর। রোমাঞ্চকর সময়টা উপভোগ করতে স্থানীয়রা ছুটে আসেন খোলামেলা এবং উঁচু জায়গায়। সেলফি তোলাও বাদ যায়নি। তবে সবাইকে চমকে দিয়ে মাত্র ৩০ মিনিট থেকেই নিভে যায় সূর্যের আলো। আবার নেমে আসে রাতের আঁধার।

প্রথম সূর্যোদয়

এটি বিজ্ঞানের ভাষায় প্রকৃতির একটি নিয়ম যাকে বলে পোলার নাইট। এর প্রভাবে আর্কটিক বৃত্তের মধ্যে থাকা অঞ্চলগুলি ২৪ ঘণ্টার বেশি সময় পুরোপুরি অন্ধকারে ছেয়ে যায়। রাশিয়ার আর্কটিক পোর্ট ‘মুরমানস্কে’ দেখানো হয়েছে, ডিসেম্বরের ২তারিখ থেকে জানুয়ারির ১১ তারিখ পর্যন্ত ৪০ দিন রাশিয়ার অঞ্চলটি সূর্যের আলো দেখা যাবে না।

যে কারণে দিনটি আসার আগে সবার আলাদাভাবে প্রস্তুতি সেরে ফেলেন। ‘পোলার নাইট’ এবং নতুন বছরের সূর্যোদয় ঐতিহ্যগতভাবে অবলোকন করে থাকে তারা। শহরের সবচেয়ে উঁচু পর্বত ‘সোলোঞ্চিয়া গোর্কা’ রুশ ভাষায় যেটি সানি হিল নামে পরিচিত, ওই পাহাড়ে দাড়িয়ে বছরের প্রথম সূর্যোদয়কে স্বাগত জানায় উত্তর রাশিয়ার অসংখ্য মানুষ। সেখানে দাঁড়িয়েই তাঁরা দেখে এই অদ্ভূত দৃশ্য। বাকি সারাটা সময় অন্ধকারেই কাটায় তাঁরা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*